GK world gkworldsp.online

GK world Online Mock Test

please subscribe our Youtube channel for more update👆👆👆. please subscribe our Youtube channel for more update👆👆👆. please subscribe our Youtube channel for more update👆👆👆

08 February, 2019

ওয়েস্ট বেঙ্গল পুলিশ কনস্টেবল পরীক্ষার ফিজিক্যাল টেস্ট ও মেজারমেন্ট সম্বন্ধে যাবতীয় বিষয় জেনে নিন।

       
ওয়েস্ট বেঙ্গল পুলিশ পরীক্ষার ফিজিক্যাল টেস্ট ও মেজারমেন্ট সম্বন্ধে যাবতীয় বিষয় জেনে নিন।
......................……...............................................
খুব তাড়াতাড়ি ফিজিক্যাল টেস্ট এর নোটিফিকেশন জারি হয়ে গেছে। 

তার আগে দেখে নাও কিভাবে প্র্যাকটিস করলে সহজেই মাঠ কমপ্লিট করা যাবে।

শূন্য পদ: বিজ্ঞপ্তিতে যে শূন্য পদ  আছে তার সম্পূর্ণ  নিচে দেয়া হল। শূন্য পদের কয়েকগুণ ছেলেকে শারীরিক সক্ষমতা পরীক্ষার জন্য ডাকা হবে।

শারীরিক সক্ষমতা পরীক্ষায় তিনটি ধাপ আছে-

১. প্রথমে ডকুমেন্ট ভেরিফিকেশন হবে ।এডমিট কার্ড ,কোয়ালিফিকেশন ডকুমেন্টগুলো চেক করা হবে।
.............................................................

২. পরবর্তী পর্যায়ে ফিজিক্যাল মেজারমেন্ট টেস্ট করা হবে। অর্থাৎ হাইট ও চেস্ট মাপা হবে যারা কোয়ালিফাই হবেন তারাই মাঠে রানের সুযোগ পাবেন।

....…..….……………………………..........

৩. তৃতীয় পর্যায় আপনাদের মাঠে 1600 মিটার দৌড়াতে হবে।
.............................................................

1600 Meter Running Tip's

এই কটা দিন এই অল্প কিছু নিয়ম মেনে দৌড়ানো অভ্যাস করুন ।

১৬০০ মিঃ ৬ মিনিট ৩০  সেকেন্ড দৌড়ানো কোন বিরাট কিছু ব্যাপার না ।

তবে যাদের অভ্যাস নেই তাদের কাছে বিরাট সমস্যা এটি ।

নিচে অল্প কিছু  Tips দিলাম যা আপনাদের অন্যদের থেকে এগিয়ে রাখবে ও অনেক কম সময়ের মধ্যে দৌড়ানো শেষ করতে সুবিধা হবে।

                           - : Tips :-

১) দৌড়ানো শুরু করার আগে সব সময় অল্পকিছু ব্যায়াম করে নিতে হবে যা আপনার দেহ কে সতেজ করবে ।
বিশেষ করে পায়ের ব্যায়াম করতে হবে।

২) দৌড়ানো শুরু করবেন সব সময় ধীরে ধীরে, প্রথম এই তারাহুরো করবেন না। যদি আপনার দৌড়ানো অভ্যাস না থাকে আর প্রথম এই তারাহুরো করেন তাহলে অল্প তেই ক্লান্ত হয়ে পরবেন।

৩)যদি আপনার দৌড়ানো অভ্যাস না থাকে তাহলে প্রথম দিনেই আনন্দে আনন্দে অনেক দূর দৌড়াবেন না।
এর ফলে আপনার পায়ে প্রচণ্ড ব্যাথা হতে পারে।

৪) দৌড়ানোর সময় অবশ্যই হাতগুলি কেউ নাড়াচাড়া করবেন।

৫) আপনার  কাঁধ সব সময় সোজা রাখবেন।

৬) সব সময় নাক দিয়ে নিঃশ্বাস নেবেন এবং মুখ দিয়ে নিঃশ্বাস ছাড়বেন। কখনোই এর উল্টোটা করবেন না।

৭) দৌড়ানোর সময় একটি কথাই চিন্তা করুন যে আমাকে লক্ষ্যে পৌঁছাতে হবে। তাহলে আপনার মনবল বাড়বে ।

৮) অবশ্যই ঘড়িতে দেখুন যে আপনি মিনিটে কতটা ছুটছেন এবং কোন মিনিট আপনি বেশি এবং কোন মিনিটে আপনি কম দৌড়ালেন।

৯) যদি আপনার ওজন বেশি হয় তাহলে অবশ্যই দুপুরে দৌড়ানো অভ্যাস করুন।এতে আপনার ওজন কিছুটা কম হবে। লোকে কি বলল এইসব ভেবে কোন লাভ নেই মনে রাখবেন চাকরিটা আপনাকে পেতে হবে। যাদের ওজন স্বাভাবিক তারা অবশ্য সকালে দৌড়ান।

১০) যদি আপনি নতুন দৌড়ানো শুরু করেন তাহলে অবশ্যই খেলার মাঠে দৌড়ান রাস্তায় দৌড়াতে যাবেন না। এতে নতুনদের কিছু অসুবিধা হয়।

১১) দৌড়ানোর সময় আশেপাশে তাকানো পিছন ফিরে তাকানো একদমই উচিত নয়।

১২) দৌড়ানোর সময় চেষ্টা করবেন যতটা পারবেন না কথা বলার।

১৩) দৌড়ানো অভ্যাস করার শেষ মুহূর্তে অবশ্যই যতটা পারবেন জুড়ে দৌড়ানোর চেষ্টা করুন।

১৪) সবশেষে লক্ষ্য করুন কত মিনিটের মধ্যে আপনি কমপ্লিট করতে পারলেন দৌড় টি।

১৫) পরের দিন এইসব নিয়ম গুলি মেনে আবার দৌড়াতে হবে। হা নতুনদের অবশ্যই পায়ে ব্যথা হবে কিন্ত তাও খেলার মাঠে অবশ্যই যেতে হবে এবং অল্প কিছু ব্যায়াম করতে হবে । ব্যাথা হয়েছে বলে বাড়িতে বসে থাকলে কখনোই দৌড়ানো সম্ভব নয়।


বিঃদ্রঃ--  

**কোন নেশা করা যাবে না।
 **যতটা পারা যায় ফাস্টফুড খাওয়া থেকে এড়িয়ে চলতে হবে।
**রাত্রে তাড়াতাড়ি ঘুমিয়ে পড়তে হবে।
**সকালে একটি ডিম, রাতে এক গ্লাস দুধ খাওয়া বিশেষ প্রয়োজন।

1 comment: